Uncategorized
Trending

👉 দাড়াতেও যার তুচ্ছ বাশের প্রয়োজন হয়
সে আবার কি করে প্রভু হয়?
© আপনি কি জানেন?! হিন্দুধর্ম গ্রন্থে মুর্তিপূজা নিষেধ থাকার পর ও হিন্দুরা মুর্তিপূজা করে!!

হিন্দুধর্মগ্রন্থে মুর্তিপূজা নিষেধ হওয়ার দলিল…
*”সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের কোন প্রতিমা নেই, কোন প্রতিমূর্তি নেই, কোন প্রতিকৃতি নেই, কোন রূপক নেই, কোন ফটোগ্রাফ নেই, তার কোন ভাস্কর্য নেই। ”
[শ্বেতাসএ উপনিষধ, অধ্যায় :৪, পরিচ্ছেদ:১৯; যযুর্বেদ, অধ্যায় :৩২, পরিচ্ছেদ:৩] .
*”যেসব লোক যাদের বিচারবুদ্ধি কেড়ে নিয়েছে জাগতিক আকাংখা, তারাই মুর্তিপূজা করে।”
[ভগবাদগিতা, অধ্যায় :৭, অনুচ্ছেদ :২০] .
*”সত্য একটাই ঈশ্বর একজনই, তার কোন মূর্তি নেই। ”
[ঋগবেদ, গ্রন্থ:১, পরিচ্ছেদ:১৬৪, অনুচ্ছেদ :৪৬; যযুর্বেদ, অধ্যায় :৪০, অনুচ্ছেদ :৮,৯] .
এমনকি ঋগবেদে কঠোরভাবে মুর্তিপূজার বিরোধীতা করার পাশাপাশি ঈশ্বরের অন্য নাম আল্লাহ দেওয়া আছে।
.
ঋগবেদে ‘ঈশ্বরের অন্য নাম আল্লাহ দেওয়া আছে’
[ঋগবেদ, গ্রন্থ:২, পরিচ্ছেদ:১, অনুচ্ছেদ :১১: ঋগবেদ, গ্রন্থ:৩, পরিচ্ছেদ:৩০, অনুচ্ছেদ :১০; ঋগবেদ, গ্রন্থ:৯, পরিচ্ছেদ:৬৭, অনুচ্ছেদ :৩০] .
সুতারং হিন্দুধর্মে কঠোরভাবে মুর্তিপূজা নিষেধ জানার পর ও যেসব ভাইয়েরা এখন থেকে মুর্তিপূজা করবে, তারা প্রকৃতভাবেই তাদের নিজেদের হিন্দুধর্ম গ্রন্থের বিরোধীতা করছে এবং কাল্পনিক মনগড়া ভাবে ধর্ম (জাহান্নাম) পালন করতেছে!!
.
আপনার হিন্দু ভাই/বন্ধুদের এই বিষয়টা জানার সুযোগ করে দিন।

Related Articles

Leave a Reply

Check Also
Close
Back to top button